জ্বালানির দাম বৃদ্ধি।বিকেলে গণপরিবহন ভাড়া সমন্বয় নিয়ে বৈঠক

শুক্রবার রাতে হঠাৎ করে অকল্পনীয়ভাবে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় সরকার। এতে গণপরিবহনের খরচ বাড়বে। তাই ভাড়া বাড়ানোর জন্য বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কাছে আবেদন করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি।

পরিবহন ভাড়া সমন্বয়ের জন্য বিআরটিএ’র ভাড়া পুনর্নির্ধারণ কমিটি আজ শনিবার বিকেল ৫টায় বৈঠকে বসবে। বৈঠকে পরিবহন মালিক, কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) ও শ্রমিক নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

রাজধানীর বনানীতে বিআরটিএ কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদের নেতৃত্বে এ বৈঠকে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। এসময় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নূরী উপস্থিত থাকবেন। বৈঠকে সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে জ্বালানি তেলের দামের সঙ্গে সমন্বয় করে ভাড়া বাড়ানো হতে পারে। আজ রাতেই ভাড়া বাড়ানোর ঘোষণা আসতে পারে।

শনিবার বেলা একটার দিকে বার্তা সংস্থা বার্তা সংস্থার চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শুধুমাত্র ভাড়া সমন্বয়ের প্রস্তাব করতে পারে। এটি সরকার কর্তৃক অনুমোদিত। বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. সরকার সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে ভাড়া সমন্বয় করবে।

ভাড়া বাড়বে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভাড়া অবশ্যই বাড়বে। তবে কতটা বাড়বে তা সরকারই ঠিক করবে। বৈঠকে আলোচনার পর আজ রাতেই জানা যাবে ভাড়া কত হবে।

এদিকে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, ঢাকায় ডিজেল বাসের জন্য প্রতি কিলোমিটারে সাড়ে তিন টাকা ভাড়া নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। বৈঠকে এই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হবে।

বর্তমানে ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ মহানগরীতে ডিজেল বাসের ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ২ টাকা ১৫ পয়সা। গত নভেম্বরে এই ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছিল। এর আগে ছিল ১ টাকা ৭০ পয়সা। দূরপাল্লার ৫১ আসনের বাসের বর্তমান ভাড়া প্রতি কিলোমিটার ১ টাকা ৮০ পয়সা। নভেম্বরের আগে তা ছিল ১ টাকা ৪২ পয়সা। তবে অনেক দূরপাল্লার বাসে ৪০টি আসন থাকে। ফলে প্রতি কিলোমিটারে যাত্রীদের ভাড়া দিতে হচ্ছে ২ টাকা ৩০ পয়সা।

শুক্রবার রাতে ডিজেলের দাম বেড়েছে ৪২.৫ শতাংশ। এ ছাড়া অকটেন, পেট্রোল ও কেরোসিনের দাম বেড়েছে যথাক্রমে ৫১ দশমিক ৬৮, ৫১ দশমিক ১৬ ও ৪২ দশমিক ৫ শতাংশ। জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার পর আজ সকাল থেকে রাজধানীর সড়কে বাস চলাচল কমেছে। বিআরটিসি ছাড়াও প্রাইভেট বাস সেভাবে চলাচল করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *